একসঙ্গে চার প্রেমিক নিয়ে পাললেন তরুণী, এরপর যা হলো..

লটারিতে বউ পাওয়া যায়, এ রকম কথা আগে শুনেছেন কখনও? সম্প্রতি এ রকম অদ্ভুত ঘটনারই সাক্ষী থেকেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের অম্বেডকরনগরের একটি গ্রাম।  অম্বেডকরনগরের টান্ডা থানা এলাকার এক তরুণী পাঁচ দিন আগে পালিয়ে গিয়েছিলেন চার প্রেমিকের সঙ্গে।

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

ওই যুবকরা আজিমনগর থানা এলাকার বাসিন্দা। বাড়ি থেকে পালিয়ে এক যুবকের আত্মীয়ের বাড়িতে ছিলেন ওই তরুণী। কিন্তু ঘটনা সামনে আসতেই তারা গ্রামে ফিরতে বাধ্য হন।

এই বিষয়টি নিয়ে তরুণীর বাবা-মা থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি নিয়েছিলেন। কিন্তু গ্রামবাসীরাই থানায় অভিযোগ দায়ের করা থেকে বিরত করেন তাদের।এই ঘটনা নিয়ে পঞ্চায়েতের সভা বসে। সেখান থেকে তরুণীর পরিবারকে প্রস্তাব দেওয়া হয় চারজনের মধ্যে কোনো এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হবে তরুণীর। তার পরিবারও তাতে সম্মতি দেয়।

কিন্তু ওই চারজনের মধ্যে কাকে বিয়ে করবেন তরুণী? এ নিয়ে তৈরি হয় জটিলতা। কারণ ওই তরুণী ঠিক করতে পারছিলেন না কাকে বিয়ে করবেন তিনি। কারণ, চার যুবককেই পছন্দ ছিল তার।

এর মধ্যে কাকে সবচেয়ে বেশি পছন্দ তাও ঠিক করতে পারছিলেন না। অপর দিকে যুবকরাও ঠিক করতে পারছিলেন না, কী করবেন। তখন পঞ্চায়েতের কর্তাব্যক্তিরা ঠিক করেন, চার যুবকের নাম লেখা কাগজ রাখা হবে একটি পাত্রে। চারটির মধ্যে থেকে বেছে নেওয়া কাগজে যার নাম থাকবে তিনিই বিয়ে করবেন তরুণীকে।

সেই মতো একটি পাত্রে রাখা ছিল নাম লেখা কাগজ। গ্রামের একটি বাচ্চাকে সেখান থেকে কাগজ তুলতে বলা হয়। সেই কাগজে যে যুবকের নাম ছিল তাকেই বিয়ে করেছেন তরুণী। মেয়েটির ব্যক্তিগত বিষয়টির কথা মাথায় রেখে গ্রামবাসীরা এই ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করেননি। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.