নিজের স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে স্বামী আটক

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

চুয়াডাঙ্গায় নিজ স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে স্বাধীন আলী নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে তাকে দামুড়হুদার জয়রামপুর গ্রাম থেকে আটক করা হয়। আটক স্বাধীন আলী ওই গ্রামের ডালু ইসলামের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, স্বাধীন আলীর সঙ্গে একই গ্রামের এক নাবালিকার কয়েক মাস আগে বিয়ে হয়। কনের বয়স কম হওয়ায় তখন বিয়ের কাবিননামা তৈরি করেনি উভয় পরিবার। এক মাস পর বিয়ের বিষয়টি অস্বীকার করে স্ত্রীকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন স্বাধীন। প্রায় দুই মাস ওই মেয়েকে আশ্বাস দিয়েও ঘরে তোলেননি তিনি।

ওই নাবালিকার খালা জানান, ২০২০ সালের ৫ নভেম্বর তার বোনের মেয়েকে ফুঁসলিয়ে স্বাধীন তার বন্ধু রাহুলের বাড়িতে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে থানা পুলিশে লিখিত অভিযোগ করে পরিবার। পরে বিষয়টি মীমাংসার পর তাদের বিয়ে দেয়া হয়। কনের বয়স কম হওয়ায় তখন বিয়ের কাবিননামা তৈরি করা হয়নি।

স্বাধীনের বাবা ডালু ইসলাম জানান, ওই মেয়ের সঙ্গে জোরপূর্বক স্বাধীনের বিয়ে দেয়া হয়েছে। আমার ৫ ছেলেমেয়ে। মাঠে ৫ কাঠা পানের বরজ আছে। বিয়ের পর ওই মেয়ে বরজের জমি তার নামে লিখে দিতে বললে বিরোধ সৃষ্টি হয়।

দামুড়হুদা মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার বাকীবিল্লাহ জানান, শুক্রবার ওই নাবালিকার খালা বাদী হয়ে জয়রামপুর মাঠপাড়ার ডালুর ছেলে স্বাধীন (২০), সুবারেকের ছেলে রাহুল (২০), হাসেমের ছেলে শাকিল (২০), মৃত ফকির মালিথার ছেলে তাহাজ্জত মালিথা (৫৫) ও নাপিতখালী গ্রামের আবদুস ছাত্তারের ছেলে (দামুড়হুদা সদর ইউনিয়নের কাজি) কুতুব উদ্দিনের (৫৫) নাম উল্লেখ করে থানায় একটি ধর্ষণের অভিযোগ করেন। পরে রাতে অভিযান চালিয়ে স্বাধীনকে আটক করা হয়।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.