বিয়ের পরেই স্ত্রীর বড় বোনের মেয়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করে রুবেল

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলায় এক কিশোরীকে অপহরণের পর আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে মো. রুবেল মিয়া (৩০) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রুবেল ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার শিবপুর গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে। সম্পর্কে রুবেল ওই কিশোরীর খালু। বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়। এর আগে গতকাল বুধবার মানিকগঞ্জ থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে রুবেলের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জ থেকে ভুক্তভোগী কিশোরীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের এ তথ্য জানিয়েছেন। ওসি জানান, গেলো বছরের ২০ ডিসেম্বর ওই কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে রুবেল। ঘটনার প্রায় দুই মাস পর গেলো ১৫ ফেব্রুয়ারি মামলা করেন কিশোরীর বাবা। মামলার পর পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার এবং কিশোরীকে উদ্ধার করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আব্দুস সবুর জানান, রুবেল গেলো বছরের অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি সময়ে তারাকান্দার ডাকুয়া ইউনিয়নে বিয়ে করেন। বিয়ের দুই মাসের মাথায় তার স্ত্রীর বড় বোনের মেয়েকে বিয়ের প্রলোভনে অপহরণ করে। বিষয়টি কিশোরীর পরিবার গোপনে মীমাংসার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়ে থানায় মামলা করেন।

এসআই আরও বলেন, গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রুবেল অপহরণ ও ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। আজ বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই কিশোরীর ফরেনসিক পরীক্ষা করা হয়েছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.