ভালোবাসা দিবসে হাতির পিঠে চড়ে ৫২ দম্পতির রাজকীয় বিয়ে!

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

বিশ্ব ভালোবাসা দিবস স্মৃতির পাতায় ধরে রাখতে থাইল্যান্ডে একসঙ্গে ৫২ প্রেমিক জুটি হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করেছেন। রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানী ব্যাংককের পূর্বদিকে অবস্থিত ট্রপিক্যাল গার্ডেন ‘নং নচে’ বিয়ের কাজটি সারেন তারা। হাতির র‌্যালির সামনেই ছিল নৃত্যশিল্পী ও ব্যান্ড পার্টি। হাতিগুলোর পিঠে ছিলেন প্রেমিক জুটি। বিয়ের কাজটি সারতে পৃথক হাতিতে ছিলেন স্থানীয় এক কর্মকর্তা।

প্রতি বছর এই দিনে সেখানে বিয়ের আয়োজন সারতে অপেক্ষায় থাকেন বহু যুগল। নাচ আর গান-বাজনার তালে তালে বর-কনেকে বরণ করে নিতেই এমন আয়োজন। করোনায় দীর্ঘ দিন আটকে ছিলো বিয়ে, অবশেষে ভালোবাসা দিবসে মেলে আনুষ্ঠানিকতার সারার অনুমতি। মূলত হাতির পিঠে চড়ে বিয়ের আয়োজন সারতেই এতো কদর এই ট্রপিক্যাল গার্ডেনটির। সেই সুযোগটি হাতছাড়া করেননি অর্ধ শতাধিক দম্পতি।

ডুয়াংসুরি টংসাই নামে এক নববধূ জানান, আমাদের জন্য এটি বিশেষ দিন। কারণ আমার বর খুবই আগ্রহী ছিলো হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করবে। আজ সেই ইচ্ছে পূরণ হলো।

পিটার আলফ্রেড নামে এক বর জানান, বলে বোঝাতে পারবো না কতোটা খুশি এখানে আসতে পেরে। করোনার মধ্যে এমন আয়োজন সত্যিই কঠিন। তবে সবকিছু পার করে এতো সুন্দর পরিবেশে বিয়ে করতে পারাটা ভাগ্যেরও বটে।

প্রতি বছর এই জায়গাটিতে ভালোবাসা দিবসে বিয়ের জন্য থাকে লম্বা লাইন। কিন্তু এবার করোনা মহামারির কারণে তা অনেকটাই কম। যদিও আয়োজকদের দাবি এবারের আয়োজনে বেশকিছু ভিন্নতাও রয়েছে।

নং নচ ট্রপিক্যাল গার্ডেনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাম্পন তানসাচা জানান, সবচেয়ে ভালো দিক হচ্ছে থাইল্যান্ডে করোনা পরিস্থিতি অতোটা ভয়াবহ হয়নি। সংক্রমণের দ্বিতীয় দফায় দর্শনার্থী কমে গেলোও এখন সেই সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.