মাটিতে পরে থাকা কুরআনের বিভিন্ন আয়াত ও ‘আল্লাহ’র নাম সংগ্রহ করেন হোসনে আরা

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

মাটিতে পরে থাকা পোষ্টার, লিফলেট ও হ্যান্ডবিল থেকে বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম, আল্লাহ্ আকবর ও আল্লাহ সর্বশক্তিমান সহ পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল কুরআনের বিভিন্ন আয়াত এবং আল্লাহর আল্লাহ্ তাআলার বিভিন্ন নাম ছিড়ে দীর্ঘ প্রায় ২০ বছর যাবৎ সংরক্ষণ করে চলেছেন হোসনে আরা (৪০) নামের এক মহীয়সী নারী।

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌর শহরের চুনিয়াখালী পাড়ার বাসিন্দা ফুটপাতের কাপড় ব্যাবসায়ী গোলাম মাওলার স্ত্রী হোসনে আরা (৪০) আনুমানিক ২০০০ সাল থেকে আবর্জনা, ড্রেন, নর্দমা, খানাখন্দ ও মাটিতে পড়ে থাকা পোষ্টার, লিফলেট ও হ্যান্ডবিল থেকে আল্লাহর নাম লেখা ও পবিত্র কুরআনের বিভিন্ন আয়াতের অংশ ছিড়ে নিজের কাছে সংরক্ষণ করে। পরে সেগুলো নদীতে ফেলে দেন তিনি।

ইতিমধ্যেই ড্রেন ও আবর্জনা থেকে এগুলো সংগ্রহ করার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। ইঞ্জিনিয়ার আবদুল্লাহ আল মাহমুদ নামের এক ব্যক্তির ফেসবুকে পোস্ট ভিত্তিতে দেখা যায় একজন বোরকা পরিহিত নারী আবর্জনা এবং ড্রেন থেকে কিছু সংগ্রহ করছেন।

পরে সেই নারীকে জিজ্ঞাসা করা হয় আপনি ড্রেন থেকে কি সংগ্রহ করছেন ? উত্তরে নারীটি পোস্টার থেকে ছিড়ে নেওয়া বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম অংশটি দেখিয়ে বলে এগুলো পবিত্র আয়াত ও লেখা।

মাটিতে পরে এসকল আয়াত ও আল্লাহ্ তাআলার নামের অবমাননা হচ্ছে তাই এগুলো দেখে আমার কষ্ট হয়। তাই আমি প্রায় বিশ বছর যাবৎ শহরের বিভিন্ন রাস্তায় ঘুরে ঘুরে এগুলো সংগ্রহ করি এবং পরে নদীতে ফেলে দেই। সরেজমিনে চুনিয়াখালী পাড়ার আবু সাঈদের বাড়িতে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন হোসনে আরার ও কার স্বামী।

হোসনে আরা জানান, ছোটবেলা থেকেই পারিবারিক ভাবে আমি ধর্মিয় শিক্ষা গ্রহণ করেছি। জ্ঞান হ‌ওয়ার পর থেকেই মাটিতে পরে থাকা পোস্টারে বা অন্যান্য কাগজে আল্লাহর নাম ও পবিত্র কুরআনের আয়াত দেখে মনে কষ্ট অনুভব করতাম।

একসময় নিজেই সিদ্ধান্ত নেই যে আমার চোখে যেগুলো পরবে সেগুলো আমি সংরক্ষণ করবো। আর এখন প্রতিদিন আমি নিজেই এগুলো সংরক্ষণ করতে বিভিন্ন রাস্তায় ঘুরি।

জানা যায়, হোসনে আরা ও তার স্বামী গোলাম মাওলা নিঃসন্তান। তাদের একটি সন্তান গর্ভে থাকা অবস্থাতেই নষ্ট হয়ে যায়। তাদের বাড়ি পাবনা জেলার চাটমোহর থানার সাইকোলা ইউনিয়নের লাঙ্গল মোড়া গ্রামে। হোসনে আরা বাবার বাড়ি বরগুনায়, তার পিতা নুর মোহাম্মদ মৃধা ছিলেন কৃষক তার মায়ের নাম নুরজাহান খাতুন। হোসনে আরা জানানা, আমার জীবনের একটি ইচ্ছা সেটা হলো পবিত্র হজ্ব পালন ও নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের র‌ওজা মোবারক জিয়ারত করা।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Leave A Reply

Your email address will not be published.