Take a fresh look at your lifestyle.

স্বামীর সহায়তায় বাসের ভিতর নারীকে ধর্ষণ

0

গাজীপুরের শ্রীপুরে স্বামীর সহায়তায় বাসের ভিতর এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ফারুক হোসেনকে (৩০) গ্রেফতার করা হয়েছে। সে শ্রীপুর পৌরসভার চন্নাপাড়া এলাকার বদর স্পিনিং মিলস্ লিমিটেডের শ্রমিক বহনকারী গাড়ি চালক। দ্বিতীয় অভিযুক্ত ভিকটিমের স্বামী সোহেল রানা (২২) পলাতক রয়েছে।

মামলার বিবরণ ও ভিকটিমের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ভিকটিম শ্রীপুর পৌরসভার চন্নাপাড়া এলাকায় ভাড়া থাকের। ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। প্রতিবেশী পরিচয়ের সূত্রে গত তিন মাস আগে সোহেলের সাথে তার বিয়ে হয়।

বিয়ের কয়েকদিন পর থেকেই তাদের মধ্যে পারিবারিক মতানৈক্য দেখা দেয়। শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ভিকটিমের স্বামী সোহেল রানা তার বন্ধু অভিযুক্ত ফারুক হোসেনকে ফোনে তার বাসায় ডেকে আনে। পরে ওই রাত ১০টার দিকে ফারুক হোসেনের সাথে ভিকটিমের বাবার ভাড়া বাসা মাওনা চৌরাস্তা এলাকায় পৌঁছে দেয়ার কথা বলে ভিকটিমকে তার সাথে পাঠিয়ে দেয়।

রাতে তেলিহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ী বদর স্পিনিং মিলস লিমিটেডের শ্রমিকদের বিভিন্ন জায়গায় নামিয়ে দেয়। বাস ফাঁকা হলে রাত অনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে পাশের কাওরাইদ ইউনিয়নের বেলদিয়া গ্রামের একটি বাঁশ ঝাড়ের পাশে নির্জন স্থানে বাসের ভেতর জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে। পরে রাত আনুমানিক ২টার দিকে ভিকটিমকে মাওনা চৌরাস্তায় তার বাবার ভাড়া বাসার সামনে নামিয়ে দিয়ে ঘটনা কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি দিয়ে চলে যায়।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়ে সোমবার রাত সাড়ে ৮টায় মামলা রুজু করা হয়েছে। ভিকটিম তার স্বামীর বন্ধুকে প্রধান ও সহায়তা করায় তার স্বামীকে দ্বিতীয় অভিযুক্ত করেছে। প্রধান অভিযুক্ত ফারুক হোসেনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমের স্বামী পলাতক রয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.